মাত্র দেড় ভরি স্বর্ণের জন্য...

১৯ জুন, ২০১৭ ১৩:৩৮:৫৭

মোঃ লিটন মিয়া
মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি:

স্বামীর চাহিদা অনুযায়ী যৌতুক দেয়ার পর বাকি ছিল মাত্র দেড় ভরি স্বর্ণালংকার। মেয়ের বাবা ওই স্বর্ণ দিতে ব্যর্থ হয়। আর তারই জেরে স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ি মিলে দীর্ঘদিন ধরে মেয়েটির ওপর চালাতে থাকে নির্যাতন।

গত শনিবার রাতেও ঝগড়া করে তার ওপর অমানবিক নির্যাতন করে স্বামী। এক পর্যায়ে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলিয়ে রাখে। এরপর এলাকায় আত্মহত্যা করার কথা প্রচার করে।

এমনটাই অভিযোগ মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া উপজেলার পূর্ব চরতিল্ডি গ্রামের গৃহবধূ রৌশনারা বেগমের পরিবারের। রোববার তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

তিল্লী ইউপি চেয়ারম্যান আ: ছালাম জানায়, ‘কয়েক বছর পূর্বে শফিকুলের সাথে বিয়ে হয় রৌশনারার। শনিবার মধ্যে রাতে শফিকুলের বাড়িতে সবাই ঘুমাতে যায়। রবিবার সকালে বাড়ির বারান্দার একটি রুমে রৌশনারার ঝুলন্ত লাশ দেখে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।’

এ ব্যাপারে সাটুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিনুর রহমান বলেন, হত্যা না আত্মহত্যা ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন হাতে না পেলে বলা মুশকিল।

স্বামীসহ ৪ জনকে আসামি করে নিহতের মা জয়মালা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। গৃহবধূর শ্বশুর আনন্দ মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: