১৪ দিন ধরে মালয়েশিয়ার মর্গে নারায়ণগঞ্জের রাজিয়ার লাশ

১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:৪২:০০

মালয়েশিয়ায় এক বাংলাদেশি নারী আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। নিহত ওই নারীর নাম রাজিয়া আক্তার (২৩)। ১৪ দিন ধরে আমপাং হাসপাতাল মর্গে পড়ে রয়েছে তার মরদেহ।

নিহত রাজিয়া আক্তারের পাসপোর্ট নং বিএল ০৮৮৯৫১০। তিনি ২০৬ এসএস শাহ রোড, বন্দর নারায়ণগঞ্জের মো. সানাউল্লাহ ও সুরিয়া বেগমের মেয়ে বলে দূতাবাস সূত্রে জানা গেছে।

স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রাজিয়া আক্তার কুয়ালালামপুরের আমপাং এলাকায় একটি অ্যাপার্টমেন্টে থাকতেন। গত ৩ অক্টোবর আমপাংএর ওই অ্যাপার্টমেন্টের অষ্টম তলা থেকে ঝাঁপ দেন। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান রাজিয়া। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তার তার মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় দেশটির পুলিশ।

তবে পাসপোর্টে উল্লিখিত ঠিকানা অনুযায়ী তার অবিভাবককে পাওয়া যায়নি। তার মরদেহ আমপাং হাসপাতাল মর্গে ১৪ দিন ধরে পড়ে রয়েছে।

পাসপোর্টের ঠিকানা ও পাসপোর্টে উল্লেখিত ০১৯৯১৩৯০৫৪৮এই মোবাইলে বার বার যোগাযোগ করেও রাজিয়া আক্তারের কোন অবিভাবককে না পাওয়াতেই তার লাশ দেশে পাঠাতে বিলম্ব হচ্ছে।

মালয়েশিয়া বাংলাদেশ দূতাবাসের পার্সোনাল অফিসার আফরোজা আক্তার জানান, সব আইনি প্রক্রিয়া শেষ হলেও ঠিকানা অনুযায়ী তার অভিভাবককে পাওয়া না যাওয়ায় মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা যাচ্ছে না। ১৪ দিন ধরে হাসপাতাল মর্গে পড়ে রয়েছে লাশটি।

পাসপোর্টে উল্লেখ করা মোবাইল নম্বরে যোগাযোগ করেও রাজিয়া আক্তারের অভিভাবককে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানান ওই কর্মকর্তা।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: