নাজমুস সাকিব সোহান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

কেমন আছেন সেই মুক্তামনি

১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ১৩:৫৮:৪১

হেমানজিওমায় আক্রান্ত সাতক্ষীরার শিশু মুক্তামনির কয়েকদফা অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হওয়ার পর তাকে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখেছে ডাক্তার ও নার্সরা। ডাক্তার সুমি বলেন, মুক্তামনি এখন আগের থেকে অনেক ভালো আছে। আশা করি আর কোন ভয় নেই।

মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) সকালে মুক্তার অপারেশন হয়। অপারেশনে মুক্তার ডান পা থেকে চামড়া কেটে হাতে লাগানো হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের দ্বিতীয় তলায় মুক্তার অপারেশন সম্পন্ন হয়।

মুক্তার বাবা ইব্রাহীম হোসেন বিডি২৪লাইভকে বলেন, শনিবার (১৪ অক্টোবর) হাতের ব্যান্ডেজ খুলেছে। এখন জ্বরের জন্য শরীরটা ভালো না। আজ মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) সকালেও জ্বর ছিল ১০৩। কিছুক্ষণ পর পর ডাক্তাররা এসে জ্বর পরীক্ষা করছে।

তিনি আরও জানান, পেট ফোলার জন্য গত তিন দিন ধরে কিছু খেতে পারে না মুক্তা, স্যালাইন দিয়ে ওর শরীরটা ঠিক রাখা হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মুক্তার হাতে স্যালাইন লাগানো। পেট অনেক ফুলে আছে। একটু পর পর ডাক্তার নার্সরা এসে মুক্তাকে দেখে যাচ্ছেন এবং মেয়ের জন্য রক্তের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়েছেন মুক্তার বাবাকে।

অপারেশন করার ফলে মুক্তার অনেক রক্তক্ষরণ হয়েছে। সেই কারণে রক্তের প্রয়োজন। মুক্তার রক্তের গ্রুপ A+ (এ পজেটিভ)।

গত জুলাই মাসের প্রথম দিকে বিভিন্ন গণমাধ্যমে বিরল চর্মরোগে আক্রান্ত সাতক্ষীরার শিশু মুক্তাকে নিয়ে ভিবিন্ন গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদন প্রকাশের পর মুক্তার চিকিৎসার দায়িত্ব নেন স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তার যাবতীয় চিকিৎসার ব্যয়ভার বহনের দায়িত্ব নেন।

মুক্তা মনিরবাবা ইব্রাহিম হোসেন জানান, দেড় বছর বয়সে মুক্তার ডান হাতে একটি ছোট গোটা দেখা দেয়। পরে তা বাড়তে বাড়তে বছর চারেক আগে এমন পর্যায়ে যায় যে স্বাভাবিক চলাফেরা ব্যাহত হয়।

১২ বছরের মেয়েটির আক্রান্ত হাতটি ফুলে দেহের চেয়ে ভারী হয়ে উঠলে তার শরীর শুকিয়ে যেতে শুরু করে। ওই হাতের কারণে সে সব সময় যন্ত্রণায় অস্থির থাকত বলে জানান তার বাবা।

বিডি২৪লাইভ/এনএসএস/এমআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: