প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

সম্পাদনা: আরাফাত হোসেন রবিন

ডেস্ক এডিটর

সুষমা-খালেদার বৈঠক: পাল্টে যেতে পারে হিসেব-নিকেশ

২২ অক্টোবর, ২০১৭ ০৯:১৮:১৫

ছবি: ফাইল ফটো।

২৪ ঘণ্টার সফরে ঢাকায় আসছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। ঢাকা সফরে তিনি চতুর্থ যৌথ পরামর্শ কমিটির বৈঠকে যোগদান ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রীদের সাথে বৈঠকের কথা রয়েছে।

সুষমা স্বরাজের ঢাকা আগমনকে কেন্দ্র করে রাজধানীতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এদিকে দীর্ঘদিন পর বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে সুষমা স্বরাজের বৈঠকের খবরে রাজনৈতিক অঙ্গনে নতুন ঢেউ উঠেছে। নির্বাচনকে সামনে রেখে সুষমার এই বৈঠককে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বৈঠক নিয়ে গুঞ্জন এখন সর্বত্র। বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বিএনপির কূটনৈতিক জোনের এক নেতা।

সূত্রটি জানায়, বিএনপি চেয়ারপারসন লন্ডনে অবস্থানকালেই সুষমা স্বরাজের সঙ্গে বৈঠকটির শিডিউল চূড়ান্ত করা হয়েছে। তবে সময়টি এখনো চুড়ান্ত করা না হলেও সোমবার সকাল থেকে দুপুর ১২টার মধ্যে যেকোনো সময় চেয়াপারসনের গুলশানের বাসভবন ফিরোজায় অনুষ্ঠিত হতে পারে।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের কয়েকজন নীতি নির্ধারনী ফোরামের সদস্য ও কূটনৈতিকদের নিয়ে কাজ করেন এমন ২-৩ জন নেতা ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারেন বলে জানা গেছে।

খালেদা জিয়া ও সুষমা স্বরাজের বৈঠকে আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচন মূল আলোচনায় বিষয় থাকবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। ইতিমধ্যেই বিএনপি নেতারা সুষমা স্বরাজের সাথে বৈঠকের আলোচ্য বিষয় ঠিক এবং হোমওয়ার্কও করেছেন।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, সুষমা স্বরাজের সঙ্গে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার এই বৈঠক সফল হলে পাল্টে যেতে পারে ঢাকার রাজনীতির সব হিসেব-নিকেশ।

খালেদা জিয়ার সঙ্গে সুষমা স্বরাজের বৈঠক হওয়ার সম্ভবনার কথা কদিন আগেই জানিয়েছে ভারতের বাংলা দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা। তাদের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, ঢাকা সফরে গিয়ে বেগম জিয়ার সাথেও বৈঠকে বসতে চলেছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ।

২০১৫ সালের জুনে প্রধানমন্ত্রী মোদী বাংলাদেশ সফর করেন। চলতি বছরের এপ্রিলে ভারত সফরে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠকে তিস্তা পানি বন্টন চুক্তি নিয়েও আলোচনা হবে বলে জানা যাচ্ছে। দ্বিপাক্ষিক বিষয়ে যাই আলোচনা হোক না কেন, বেগম জিয়ার সঙ্গে বৈঠকটিই গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখছে দুদেশের মিডিয়া।


বিডি২৪লাইভ/এএইচআর


বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: