সোহেল রানা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জে সোমবার অর্ধদিবস হরতাল

২২ অক্টোবর, ২০১৭ ১৯:৩০:১৮

সিরাজগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক এমপি রুমানা মাহমুদের গাড়ীতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। রবিবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে কামারখন্দ উপজেলা থেকে সিরাজগঞ্জ শহরে ফেরার পথে বঙ্গবন্ধু সেতুপশ্চিম সংযোগ সড়কের সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউনিয়নের কড্ডা মোড়ে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে সাবেক এমপি রুমানা মাহমুদ ও জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চুসহ ৪ জন আহত হয়েছে। হামলার পর পরই রুমানা মাহমুদসহ বিএনপি নেতারা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে গিয়ে বিষয়টি পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমেদকে অবগত করেন। সয়দাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রাজা মেম্বরের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতারা পরিকল্পিতভাবে রুমানা মাহমুদসহ বিএনপি নেতাদের হত্যার উদ্দেশ্যে এ হামলা চালায় বলে সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপি নেতারা অভিযোগ করেছেন। একই সাথে হামলার প্রতিবাদে সোমবার সিরাজগঞ্জে অর্ধদিবস হরতালও আহবান করেছে।

জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান বাচ্চু সংবাদ সম্মেলনে জানান, কামারখন্দ উপজেলা বিএনপির প্রয়াত সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলামের পরিবারকে সমবেদনা জানাতে জেলা বিএনপির সভাপতি রুমানা মাহমুদের নেতৃত্বে বিএনপির নেতারা সকালে তার বাড়িতে যায়। দুপুরে কামারখন্দ থেকে বাড়ি ফেরার পথে সয়দাবাদ ইউনিয়নের কড্ডা মোড়ে পৌছলে কোন কারণ ছাড়াই পরিকল্পিতভাবে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রাজার মেম্বরের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতারা রামদা-হকিষ্টিক-বোমা ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে তাদের গাড়ীতে হামলা চালায়। এ সময় বোমার আঘাতে গাড়ির কয়েকটি স্থানে গ্লাস ভেঙ্গে যায়। বোমার স্পিন্টারের আঘাতে তিনি এবং জেলা বিএনপি সভাপতি রুমানা মাহমুদ, যুগ্ম সম্পাদক নাজমুল হাসান তালুকদার রানাসহ ৪জন আহত হয়।

তিনি আরো জানান, তাৎক্ষনিক গাড়িটি দ্রুত চালিয়ে নিয়ে সরাসরি পুলিশ সুপার কার্যালয়ে গিয়ে বিষয়টি তাকে অবগত করা হয়। এ সময় পুলিশ সুপার ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দেন। তিনি আরো জানান, হামলার প্রতিবাদে জেলা বিএনপি জরুরী সভা আহবান করে সোমবার জেলায় অর্ধদিবস হরতাল পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন।

মামলার বিষয়ে বলেন, মামলার প্রস্তুতি চলছে। জেলা বিএনপির সভাপতি রুমানা মাহমুদরে বাসায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জেলা বিএনপির সভাপতি রোমানা মাহমুদ, সাবেক এমপি আব্দুল মান্নান তালুকদার, সিনিয়র সভাপতি এ্যাড. মোকাদ্দেস আলী, হুমায়ন ইসলাম খান, মজিবুর রহমান লেবু, আজিজুর রহমান দুলাল, যুগ্ম সম্পাদক নাজমুর হাসান তালুকদার রানা, স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ভিপি শামীম খান, জেলা যুবদলের সভাপতি আবু সাইদ সুইট, সাধারন সম্পাদক মির্জা আব্দুল জব্বার বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক আলামিন খান ও ছাত্রদলের আহবায়ক আনোয়ার হোসেন রাজেশসহ বিএনপি-ছাত্রদল নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রাজা মেম্বর জানান, ছাত্রলীগ-যুবলীগের কয়েকজন নেতাকর্মীরা গাড়ীতে ঢিল ছুড়েছিল। পরে তাদেরকে সরিয়ে আনা হয়। এ বিষয়ে পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি কথা বলতে রাজি হননি।

বিডি২৪লাইভ/এস এ


বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: