রিপন আলি রকি

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

আসামিদের হুমকির মুখে পরিবারের আর্তনাদ!

১৫ নভেম্বর, ২০১৭ ০৭:০০:০০

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জে সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ মনিরুল হত্যার ঘটনায় মামলা প্রত্যাহারের জন্য আসামীদের হুমকির মুখে নিহত মনিরুলের অসহায় পরিবার নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরে শিবগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে নিহত মনিরুলের স্ত্রী রহিমা বেগম তার পরিবারের নিরাপত্তা ও খুনিদের বিচারের দাবিতে মিডিয়ার মাধ্যমে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে রহিমা বেগম বলেন, গত ২৪ অক্টোবার ২০১৪ বিকেলে শিবগঞ্জ স্টেডিয়াম মাঠের সামনে আম বাগানে সিএন্ডএফ এর সাবেক সভাপতি প্রভাবশালী যুবলীগ নেতা আখিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক তোহরুল ইসলাম টুটুল, সহ-সভাপতি সেরাজুল ইসলাম (মুন্সি)সহ একদল সন্ত্রাসী আমার স্বামীকে গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করে। সেই দিন রাতেই শিবগঞ্জ থানা পুলিশ পুখুরিয়া এলাকা থেকে রক্তমাখা প্রাইভেট কার, পিস্তুল, গুলির খোষা ও তাজা গুলিসহ তাদেরকে হাতে-নাতে আটক করে। এই ঘটনায় আমি বাদী হয়ে শিবগঞ্জ থানায় মামলা (মামলা নং ৩২ তাং ২৫/১০/২০১৪) দায়ের করি।

এ ঘটনার প্রেক্ষাপটে সোনামসজিদ সিএন্ডএফ, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, সেচ্ছা সেবকলীগ দ্রুত বিচারের দাবিতে একাধিকবার মানব বন্ধন, সংবাদ সম্মেলন ও বিক্ষোভ সমাবেশও করেছেন। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য যে, আসামীরা জামিনে মুক্ত হয়ে বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন। তারা বিভিন্ন সময় আমাকে ও আমার পরিবারকে মামলা প্রত্যাহারের জন্য প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে হুমকি দিয়ে আসছে।

তিনি আরও বলেন, ৭ সেপ্টেম্বর দুপুরে আসামী আখিরুলের ভাই খাইরুল ও সোনাপুর মাদ্রাসার সুপার আব্দুল মালেক আমার বাড়িতে গিয়ে হুমকি দিয়ে বলে আর ‘মামলা নিয়ে না খেলে প্রত্যাহার করে নাও’। গত এক সপ্তাহ আগেও সিএন্ডএফ এর সভাপতি হারুন-অর-রশিদ, ডা. শাদেকুল ইসলামসহ কয়েকজন আপোষ মিমাংসার জন্য প্রস্তাব দেন।

আবেক জড়িত কন্ঠে রহিমা বেগম আরও বলেন, আমার স্বামীর হত্যাকারীদের নিয়ে নিয়ে গত ১২ নভেম্বর শ্রমিক সমন্বয়ের সভাপতি সাদেকুর রহমান মাস্টারের নের্তৃতে নাটকীয় ভাবে মামলা প্রত্যাহরের দাবিতে মানববন্ধন করেছে সোনা মসজিদ সিএন্ডএফ, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, সেচ্ছা সেবকলীগ।

এ ব্যাপারে শ্রমিক সমন্বয়ের সভাপতি সাদেকুর রহমান মাস্টার ও সাধারণ সম্পাদক মোবারক হোসেনের সাথে যোগযোগের চেষ্টা করলে তাদের মুঠো ফোন বন্ধ থাকায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: