সম্পাদনা: আমিনুল ইসলাম রোমান

ডেস্ক এডিটর

দেশে প্রথম বাইমোবাইলে চালু হলো 'মাইশপ' সুবিধা

১৯ নভেম্বর, ২০১৭ ২২:৩৩:০০

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান বাইমোবাইল ঘরে বসে অনলাইনে বাড়তি আয়ের সুবিধা চালু করেছে, যা বাংলাদেশে প্রথম। এই মাইশপ প্রোগ্রামটি একদমই ঝামেলামুক্ত এবং ঝুঁকিহীন। পড়াশোনা বা কাজের পাশাপাশি এই কাজটি চালিয়ে যেতে পারেন যে কেউ।

রবিবার (১৬ নভেম্বর) গণমাধ্যমকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মাইশপে সাইন-আপ করে যে কেউ একটি নিজস্ব স্টোর তৈরি করতে পারবে বিনামুল্যে, এবং বাইমোবাইলে যত রকম পণ্য রয়েছে সে তার স্টোরে যুক্ত করতে পারবে। তার স্টোরে যুক্ত পণ্যের লিংক থেকে বিক্রি হওয়া প্রতিটি পণ্যের মুল্যের ভিত্তিতে তার একাউন্টে একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ কমিশন যুক্ত হবে।

যা বিকাশের মাধ্যমে স্টোর মালিকের হাতে পৌঁছে দেয়া হবে, এমনকি স্টোর মালিক চাইলে সরাসরি বাইমোবাইলের অফিসে এসেও একাউন্টে জমা হওয়া টাকা সংগ্রহ করতে পারবে।

যারা মোবাইলের ব্যবসা করেন তারা একটি নির্দিষ্ট জায়গার মধ্যেই ব্যবসা করেন। এমন মোবাইল বিক্রেতারা মাইশপের মাধ্যমে এখন সারা দেশে তার শপ থেকে পণ্য বিক্রয় করতে পারবেন। যদি দূর দুরান্তের কোন ক্রেতা ফোন কিনতে চায়, তাহলে মাইশপের মাধ্যমে ফোনটি কিনলে কাস্টমারের ঠিকানায় মাইশপ থেকেই ফোন পৌঁছে দেয়া হবে। এবং সেই ফোনের মুল্যের ভিত্তিতে তিনি পেয়ে যাবেন একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ।

বাইমোবাইল হেড মো. ইউসুফ আলী জানান, দেশে আমরাই প্রথম এই সুবিধা চালু করেছি। যারা ঘরে বসে অর্থ উর্পাজন করতে চান তারা খুব সহজেই এখন আয় করতে পারবেন মাইশপের মাধ্যমে। সারা মাসের অর্থ পরবর্তী মাসের ১০ তারিখের মধ্যে বিকাশ/ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠিয়ে দেয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, এই কাজটি করা খুবই সহজ। যদি কারও হাতে একটি স্মার্টফোন এবং ইন্টারনেট সংযোগ থাকে তাহলে সে যেকোন জায়গা থেকে এই কাজটি করা সম্ভব। এছাড়াও বাইমোবাইল প্রতি সপ্তাহে মাইশপ একাউন্টের মালিকদের নিয়ে পর্যায়ক্রমে ট্রেনিং-এর ব্যবস্থা রেখেছে। শুধু আপনার একটু ইচ্ছা বাকিটা আমাদের।

বিডি২৪লাইভ/এমএম/এআইআর

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: