শাহিনুর রহমান শাহিন

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

ভর্তি হতে এসে আটক ৪ শিক্ষার্থী

২৩ নভেম্বর, ২০১৭ ২১:০৪:০০

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তির শেষ দিনে জালিয়াতির অভিযোগে ৪ শিক্ষার্থীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। আটককৃত ওই চার শিক্ষার্থী হলেন খায়রুল ইসলাম, অলি আহমেদ, হিমাদ্রী সাহা ও রাশিদুল হাসান রাজন।

বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) ওই চার ভর্তিচ্ছু নিজ নিজ বিভাগে ভর্তি হতে গেলে বিভাগীয় শিক্ষকরা উত্তরপত্রে হাতের লেখার অমিল পাওয়ায় তাদেরকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করে।

পরে পুরাতন কলা ভবনের ডীন অফিসে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে লিখিত স্বীকারোক্তিতে জালিয়তির অভিযোগ স্বীকার করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখা মারফত অভিযুক্ত শিক্ষার্থীদের আশুলিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

আটককৃত খায়রুল ইসলামের বাড়ি সাতক্ষীরার আশাশুনি এলাকায় তার বাবার নাম রফিকুল ইসলাম, রাজশাহীর বাঘার জান মোহাম্মদের ছেলে আলি আহমেদ, নেত্রকোনার মো. জানু মিয়ার ছেলে রফিকুল হাসান রাজন ও পাহাড়ি সাহার ছেলে হিমাদ্রী সাহা।

এরা সবাই ‘সি’ ইউনিটের (কলা ও মানবিক অনুষদ) বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি হতে এসেছিল। নিজ নিজ বিভাগে হাতের লেখা পরীক্ষা করা হয়। এতে মিল না পাওয়ায় আটক করা হয় তাদের।

খায়রুল ইসলাম প্রথম দিকে অস্বীকার করলেও বৃহস্পতিবার ৩ লাখ টাকা চুক্তিতে প্রক্সি দিয়ে ‘সি’ ইউনিটে ৭৬তম হওয়ার কথা স্বীকার করেন। এছাড়া অলি আহমেদ, হিমাদ্রী সাহা, রাশিদুল হাসান রাজন প্রক্সির সহায়তায় ‘সি’ ইউনিটে যথাক্রমে ২১ তম, ৩৩ তম ও ৭৬ তম স্থান অর্জন করেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে প্রক্সি দিয়ে চান্স পাওয়ার কথা স্বীকার করলে তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: