জ্বালানি সাশ্রয়ী টাটার নতুন গাড়ি

১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:৩২:২১

বিশ্বখ্যাত টাটা মটরসের অত্যাধুনিক নতুন একটি জ্বালানি সাশ্রয়ী গাড়ি দেশের বাজারে আনলো নিটল মটরস লিমিটেড। গাড়িটির মডেল 'টাটা টিয়াগো'। ছয়টি রঙে গাড়িটি পাওয়া যাবে।

শুক্রবার (১২ জানুয়ারি) রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে 'টাটা টিয়াগো' দেশের বাজারে বিক্রির ঘোষণা দেন নিটল-নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান আব্দুল মাতলুব আহমদ।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, আরামদায়ক ও নির্ঝঞ্ঝাট ড্রাইভিংয়ের জন্য 'টাটা টিয়াগো' অত্যন্ত উপযোগী। অত্যাধুনিক সুবিধা সম্বলিত হওয়ায় এই গাড়িতে ভ্রমণ হবে নিরাপদ। এই গাড়িটি এক লিটার পেট্রোলে ৩৯.১ কিলোমিটার মাইলেজ পাওয়া যাবে।

আব্দুল মাতলুব আহমদ বলেন, 'দেশে শতকরা ৯ শতাংশ মানুষ নতুন গাড়ি কেনেন। বেশি দামের কারণে বাকিরা রিকন্ডিশন গাড়ি কিনে থাকেন। আমরা রিকন্ডিশন গাড়ির দামে নতুন গাড়ি দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছি। অচিরেই বাংলাদেশে টাটার সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে গাড়ি উৎপাদন কারখানা চালু করা হবে।'

তিনি আরও বলেন, 'আমরা দেশে মোটরসাইকেল উৎপাদন করে সফল হয়েছি। এবার দেশে গাড়ি তৈরির পরিকল্পনা নিয়েছি। এ কাজে আমাদের সহযোগিতা করবে টাটা মোটরস। আমরা প্রত্যাশা করছি বাংলাদেশের মানুষের যানবহন সংকট কমিয়ে আনতে। এজন্য ব্যক্তিগত গাড়ি আমদানীর পাশাপাশি গণপরিবহনও আমদানি করা হচ্ছে।'

টাটা মটরসের প্যাসেঞ্জার ভেইকেল বিজনেস ইউনিটের প্রেসিডেন্ট মায়নক পারিক বলেন, ‘আমরা আজ বাংলাদেশে যে গাড়িটি বিক্রির ঘোষণা দিয়েছি সেটা আকর্ষণীয় একটি গাড়ি। স্বল্প দামের এই গাড়িটিতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। এতে আরোহন করে চালক ও যাত্রী উভয় নিরাপদ থাকার পাশাপাশি আরামে ভ্রমণ করতে পারবেন।'

টাটা টিয়াগো গাড়িটিতে রয়েছে রিভোট্রোন ১.২ লিটার মাল্টি ড্রাইভ পেট্রোল ইঞ্জিন। এতে ১১৯৯ সিসির থ্রি সিলিন্ডার ইঞ্জিন সংযোজন করা হয়েছে। এই ইঞ্জিনের সর্বোচ্চ ক্ষমতা ৮৫ পিএস@ ৬০০০ আরপিএম। ম্যাক্স টর্ক ১১৪ এনএম@৩৫০০ আরপিএম।

গাড়িটিতে ৫ স্পিড এএমটি গিয়ার ট্রান্সমিশন ব্যবহার করা হয়েছে। গাড়িটির হুইল ব্যাস ২৪০০ মিলিমিটার। ফুয়েল ট্যাংকের জ্বালানির ধারণ ক্ষমতা ৩৫ লিটার।

বিডি২৪লাইভ/ইম

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: