সম্পাদনা: হৃদয় খান

ডেস্ক কন্ট্রিবিউটর

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সহজ জয়ের রহস্য জানালেন সাকিব

১৬ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৯:২৫:০০

ফাইল ফটো

সাকিব আল-হাসান দেশের অন্যতম একজন ক্রিকেটার। ২০০৬ সালের আগস্ট মাসে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে অভিষেক। তিনি বামহাতি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান এবং বামহাতি অর্থোডক্স স্পিনার। সাকিব ছিলেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)-এর একজন প্রাক্তন শিক্ষার্থী। তাঁর খেলার মান আর ধারাবাহিকতা তাঁকে নিয়ে গেছে এক নতুন উচ্চতায়, হয়েছেন দলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য একজন খেলোয়াড়-"দ্য ওয়ান ম্যান আর্মি"।

এছাড়াও তাঁর রয়েছে বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার হওয়ার কৃতিত্ব। সাকিব ২০১৫ সালের জানুয়ারিতে টেস্ট, ওডিআই ও টি২০ প্রত্যেক ক্রিকেট সংস্করণে এক নম্বর অল-রাউন্ডার হওয়ার গৌরব অর্জন করেন| সাকিব প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে একদিনের ক্রিকেটে ৪,০০০ করার গৌরব অর্জন করেন। তিনি টি২০তে বাংলাদেশের দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ১০০০ রান পূর্ণ করেন৷ এছাড়া দ্বিতীয় অলরাউন্ডার হিসেবে টি২০তে ১০০০ রান ও ৫০ উইকেট লাভ করেন ৷

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মাশরাফি বিন মর্তুজা (ম্যাশ)। নির্ধারিত ৫০ ওভারের আগেই ২ উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় টাইগাররা। জয় দিয়েই শুরু হলো টাইগারদের বছর। অন্যদিকে ত্রিদেশীয় সিরিজে জয়ে শুরু। প্রায় দেড় বছর পর ঘরের মাঠে এমন শুরু নিয়ে খেলা শেষে ম্যাচসেরার পুরস্কার বিজয়ী সাকিব আল হাসান আলোচনা করেন বিভিন্ন বিষয় নিয়ে।

ম্যাচ জয় দিয়ে বছর শুরুর পরিকল্পনার কথা আগেই বলেছিলেন সাকিব আল হাসান। এবার সেটা করতে পারার অনুভূতি জানালেন সাকিব, তিনি বলেন নতুন বছরের শুরুটা ভালো হলো, সবদিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ। যেহেতু এটা তিন জাতির সিরিজ সেহেতু সময়টাও গুরুত্বপূর্ণ। এটা আমাদের আত্মবিশ্বাস চাঙা করবে। সামনে যেহেতু শ্রীলঙ্কার সঙ্গে খেলা কঠিন চ্যালেঞ্জ আছে। এটা তাই মানসিক দিক থেকে অনেক সাহায্য করবে। বিশেষ করে আমাদের বোলাররা ভালো বোলিং করেছে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সফল হওয়ার বড় এক কারণ স্পিন। তাছাড়া সকালের দিকে উইকেটে স্পিনারদের জন্য হেল্পও ছিল। যত সময়ই পার হয়েছে তত সহজ হয়েছে। এজন্য প্ল্যান ছিল দ্রুত উইকেট নেয়ার। তারা একটু পেস বলে স্বস্তিবোধ করে তাই আমারা স্পিন দিয়ে শুরু করেছি।

সাকিব আরো বলেন, আমাদের পারফরম্যান্স প্রত্যাশিত। আমাদের ধারণা ছিল জিম্বাবুয়ে আরেকটু ভালো খেলবে। কিন্তু তারা শর্ট করতে পারেনি। আমাদের বোলারদেরও ক্রেডিট দিতে হয়। যেভাবে ওরা বোলিং করেছে তা ছিলো অসাধারণ।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: