প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

মোঃ সাইফুল ইসলাম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

‘দু’দল শক্ত অবস্থান করলেই ব্যাপক মারামারি হবে’

২২ জানুয়ারি, ২০১৮ ২১:৫০:৪০

প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের প্রচারণা করলে অন্য যে দল আছে তাদেরকেও সভা সমাবেশ করার সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে। না দেওয়া হলে সেটা দুঃখজনক হবে বলে মন্তব্য করেছেন টকশো’তে আমন্ত্রিত এক অতিথি।

রবিবার (২১ জানুয়ারি) বেসরকারি টেলিভিশন ইন্ডিপেন্ডেন্ট ‘আজকের বাংলাদেশ’ টক শো’তে আমন্ত্রিত অতিথি একথা বলেন।

টক শো’র আলোচনার বিষয় ছিলো ‘প্রচারের আচার’। এই টক শো’তে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মীজানুর রহমান, সাংবাদিক ও কলাম লেখক মাহফুজ উল্লাহ। উপস্থাপনায় ছিলেন খালেদ মহিউদ্দীন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মীজানুর রহমান বলেন, নির্বাচনী প্রচারণায় প্রধানমন্ত্রী করতেই পারেন। তিনি শুধু নয়। তার আগে যারা ক্ষমতায় ছিলেন তারাও করে গেছেন। প্রধানমন্ত্রীর থাকাকালীন সময়ে নিজ দলের জন্য প্রচারণা করতে পারেন।

সাংবাদিক ও কলাম লেখক মাহফুজ উল্লাহ বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনী প্রচারণার করলে অন্য যে দল আসে তাদেরকেও সুযোগ-সুবিধা দিতে হবে। অন্য দলকেও সভা সমাবেশ করা সুবিধা দিতে হবে। সেটা না দেওয়া হলে সেটা হবে দু:খজনক। আওয়ামী লীগের মধ্যে অভ্যন্তরীর্ণ কোন্দল এমন পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। তার হস্তক্ষেপ ছাড়া এই কোন্দল সমাধান হবে না। কোন্দল যে পর্যায়ে গেছে তার উপস্থিতি জরুরি হয়ে পড়েছে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মীজানুর রহমান আরো বলেন, কোন্দল তো শুধু আওয়ামী লীগের মধ্যে নয়, বিএনপির মধ্যেও আছে। আমার জানা মতে, বিএনপির ২০ জেলার মধ্যে কোন্দল চলছে। বিএনপির অনেক জেলাতে সাধারণ সম্পাদক তার সভাপতির সঙ্গে কথা বলে না। এখন থেকেই নির্বাচনের প্রচারণা শুরু করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী তো অন্যকে প্রচারণা করতে মানা করা হয়নি। ভোট কেন্দ্রে রাজনৈতিক দলকে শক্ত অবস্থান করতে হবে।

সাংবাদিক ও কলাম লেখক মাহফুজ উল্লাহ আরো বলেন, বিরোধী দলকে কতটুক সুযোগ দেওয়া হয় এখন তা দেখার বিষয়। বড় যে দল আছে তাকে সেই সুযোগ দেওয়া হয় কী না? তার চেয়ারপারসন সেই সুযোগ পান কী না এটাই দেখার বিষয়। তখনই বুঝা যাবে সরকারের মধ্যে সততা আছে কী না? সারাদেশে যত ভোট কেন্দ্র হয় সেইগুলোতে যেভাবে সশস্ত্র অনুপ্রবেশ ঘটে, যেভাবে মাস্তানি হয়, যে ভাবে ভোট কেন্দ্র দখল করা হয়। দুই দল শক্ত অবস্থান করলে তখন ব্যাপক মারামারি হবে। বোমাবাজি হবে।

বিডি২৪লাইভ/এমআই

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: