রনজিৎ সরকার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

রুপা গণধর্ষণ ও হত্যা মামলায় ২৭জনের সাক্ষ্যগ্রহণ সম্পন্ন

২৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৯:৪৭:০০

ফাইল ফটো

টাঙ্গাইলের মধুপুরে ঢাকার আইডিয়াল ‘ল’ কলেজের শিক্ষার্র্থী রুপা খাতুনকে চলন্ত বাসে গণধর্ষণ ও ঘাড় মটকে হত্যা মামলার স্বাক্ষ্য গ্রহণ সম্পন্ন করেছে আদালত। পাঁচ পরিবহন শ্রমিকের বিরুদ্ধে আনা মামলাটি টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে মঙ্গলবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে স্বাক্ষ্য গ্রহণের নির্ধারিত নবম কার্যদিবসে টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক আবুল মনসুর মিয়া মামলার স্বাক্ষ্য গ্রহণ করেন।

টাঙ্গাইল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল আদালতের বিশেষ পিপি একেএম নাসিমুল আক্তার ও মামলার বাদি পক্ষের আইনজীবী এস আকবর খান জানান, মঙ্গলবার সকালে গ্রেপ্তারকৃত আসামী ছোঁয়া পরিবহনের সহকারি শামীম (২৬), আকরাম (৩৫), জাহাঙ্গীর (১৯) এবং চালক হাবিবুর (৪৫) ও সুপারভাইজার সফর আলীকে (৫৫) আদালতে উপস্থিত করা হয়। তাদের উপস্থিতিতে চাঞ্চল্যকর এই মামলার স্বাক্ষ্য গ্রহণ সম্পন্ন হয়।

স্বাক্ষ্য গ্রহণের নবম কার্যদিবসে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মধুপুরের অরণখোলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ কাইয়ুম সিদ্দিকী খান স্বাক্ষ্য দেন আদালতে। পরে আদালত আগামী ২৮ জানুয়ারি মামলার পরবর্তী দিন ধার্য করেন।

২৭জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণের মধ্য দিয়ে চাঞ্চল্যকর এ মামলার স্বাক্ষ্য গ্রহণ পর্ব শেষ হয়েছে। চার্জশীটে ৩২জনকে সাক্ষী করা হয়। এর মধ্যে সম্প্রতি আমেনা খাতুন নামে একজন স্বাক্ষীর মৃত্যু হয়েছে।

উল্লেখ, গত (২৫ আগস্ট) বগুড়া থেকে ময়মনসিংহ যাওয়ার পথে রুপা খাতুনকে চলন্ত বাসে পরিবহন শ্রমিকরা গণধর্ষণ করে। পরে তাকে হত্যা করে টাঙ্গাইলের মধুপুর বন এলাকায় ফেলে রেখে যায়।

বিডি২৪লাইভ/এইচকে

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: