কামরুল হাসান

লেখক, সাংবাদিক

তামিমের দুটি রেকর্ড !

২৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:১৭:০৮

একটি আস্থার নাম তামিম ইকবাল। দেশের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তিনি। দিনে দিনে বাংলাদেশের ব্যাটিং স্তম্ভের আস্থার প্রতীক হয়ে উঠেছেন তিনি। একের পর এক রেকর্ড গড়ে চলেছেন তামিম। গত ম্যাচেই বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১১ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন এবার আরও দুটি রেকর্ড করে ফেললেন।

এত দিন একই ভেন্যুতে ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি রান করার রেকর্ডটি ছিল শ্রীলঙ্কার সাবেক অধিনায়ক সনাৎ জয়সুরিয়ার দখলে। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ৭১ ম্যাচে ৭০ ইনিংস খেলে করেন ২,৫১৪ রান শ্রীলঙ্কার এই ব্যাটিং জিনিয়াস চারটি শতক ও ১৯টি অর্ধশতকের সাহায্যে । জয়সুরিয়ার এই রেকর্ড ছাড়িয়ে যেতে বাংলাদেশের ওপেনারের লাগত মাত্র ৪২ রান। মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে পাঁচটি শতক ও ১৫টি অর্ধশতকের সাহায্যে তামিমের ঝুলিতে জমা হয়েছিল ২,৪৭৩ রান। জয়সুরিয়াকে ছাড়িয়ে একই স্টেডিয়ামে সবচেয়ে বেশি রান করার রেকর্ডটি এখন তামিমের দখলে। জয়সুরিয়ার চেয়ে ৩৫ রানে এগিয়ে আছেন তামিম।

অন্য রেকর্ডটি অবশ্য তামিমের ব্যক্তিগত মাইলফলক স্পর্শের রেকর্ড। ওয়ানডে ফরম্যাটে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ৬০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ থেকে মাত্র ৬৬ রান দূরে ছিলেন তামিম। ১৭৬ ম্যাচে ১৭৪ ইনিংস খেলে তামিমের ঝুলিতে জমা ছিল ৫,৯৩৪ রান। আজকের ম্যাচে আউট হওয়ার আগে নিজের নামের পাশে ৭৬ রান যোগ করার আগেই লক্ষ্যে পৌঁছে যান তামিম। ৪১টি অর্ধশতক ও নয়টি শতকের সাহায্যে তামিমের রান এখন ৬,০১০। তামিমের পরেই আছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিনি অবশ্য তামিমের থেকে অনেক পিছিয়ে।

উল্লেখ্য, সিরিজের পঞ্চম ম্যাচে (মঙ্গলবার) বাংলাদেশের দেওয়া ২১৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করছে জিম্বাবুয়ে। টস জিতে ব্যাটিং করে নির্ধারিত ৫০ ওভার খেলে ৯ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ হয় ২১৬ রান। জিম্বাবুয়েকে জিততে টার্গেট ছিল ২১৭ রানের।

২১৭ রান টার্গেটে ব্যাটিং করতে নেমে ঠিক সামলে উঠতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। ব্যাটিং বিপর্যয়ে টাইগারদের কাছে হারতে হয় ৯১ রানের ব্যবধানে।

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: