সম্পাদনা: সাজিদ সুমন

ডেস্ক এডিটর

৩ দিন আটকে রেখে গৃহবধূকে ধর্ষণ 

২২ মার্চ, ২০১৮ ২৩:২৯:০৮

বাবার বাড়ি বেড়ানো শেষে স্বামীর বাড়ি ফেরার পথে বরিশালের গৌরনদীতে এক গৃহবধূকে (১৯) তিন দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে। এ অভিযোগে প্রধান অভিযুক্ত সহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত বুধবার (২১ সন্ধ্যায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে গৌরনদী থানায় মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত সহ ২জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে। এরা হলো ধর্ষক জাকির হোসেন ও তার সহযোগী লোকমান সরদার।

ধর্ষিতা ওই নারী জানান, তার স্বামী ঢাকার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। গত ১৭ মার্চ আগৈলঝাড়ার গৈলা গ্রামে বাবার বাড়ি বেড়ানো শেষে স্বামীর বাড়ি যাচ্ছিলেন তিনি। গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড থেকে প্রতিবেশী চাচাতো শ্বশুর লোকমান সরদারের ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেলে ওঠেন তিনি।

পথিমধ্যে মাহিলাড়া এলাকা অতিক্রমকালে প্রতিবেশী বাসুদেবপাড়া গ্রামের মৃত হাসেম হাওলাদারের ছেলে জাকির হোসেন ওই মোটর সাইকেলে ওঠে। পরে তারা ওই গৃহবধূকে ফুঁসলিয়ে তাদের এক বন্ধুর বাড়ি বাবুগঞ্জের রহমতপুর গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ৩দিন আটকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে জাকির। গত ২০ মার্চ সন্ধ্যায় ধর্ষক জাকির হোসেন ও তার সহযোগী লোকমান রাতের খাবার আনতে গেলে ওই সুযোগে গৃহবধূ পালিয়ে বাড়ি চলে যান। ওইদিনই গৌরনদী থানায় মামলা করেন তিনি।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গৌরনদী থানার এসআই মোশারফ হোসেন জানান, মামলা দায়েরের পর ওই রাতেই বাসুদেবপাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে প্রধান অভিযুক্ত জাকির হোসেন ও তার সহযোগী লোকমান সরদারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ধর্ষিতাকে গতকাল শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃতদের গতকাল বরিশালের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক তাদের কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন।


বিডি২৪লাইভ/এসএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: