প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

আরমান হোসেন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

কুড়িগ্রাম-৪ আসনের এমপি

ইসির খসড়া গেজেটে আপত্তি

২১ এপ্রিল, ২০১৮ ১৯:৫৪:০০

ছবিঃ সংগৃহীত

জাতীয় সংসদের বিভিন্ন আসনের সীমানা পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত আপিলের ওপর শুনানি শুরু হয়েছে। শনিবার (২১ এপ্রিল) সকালে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে এই শুনানি শুরু হয়। সকালে নীলফামারী ৩, রংপুর ১ ও ৩, কুড়িগ্রাম ৪ আসনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

শুনানি শেষে কুড়িগ্রাম-৪ আসনের সংসদ সদস্য রুহুল আমিন সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত খসড়া গেজেটে আপত্তি জানিয়েছেন তিনি।

এই জনপ্রতিনিধি বলেন, ‘খসড়া সীমানাটি ভৌগোলিক কারণে অযৌক্তিক। এটা কার্যকর হলে আমার নির্বাচনি এলাকার ভোটারদের চার ঘণ্টা নদীপথ পার হয়ে সংসদ সদস্যদের কাছে যেতে হবে।’

এদিকে ‘সীমানার গেজেট বহাল রাখার’ দাবি করে কুড়িগ্রামের চিলমারি উপজেলা চেয়ারম্যান শওকত আলী সরকার (বীর বিক্রম) বলেন, ‘স্বাধীনতার পর থেকে দশম সংসদ নির্বাচনের আগ পর্যন্ত সংসদীয় আসন যেরকম ছিল, কমিশনের খসড়ায় তাই আছে। দশম সংসদ নির্বাচনের আগে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে সংসদীয় আসনের সীমানা পরিবর্তন করা হয়েছে।’

কমিশন যে খসড়া করেছে সেটাকে তিনি স্বাগতও জানান। বলেন, ‘আমরা চাই, সীমানা যেন এভাবেই বাস্তবায়ন হয়।’ কুড়িগ্রাম-৪ আসনের খসড়ার পক্ষে ১২টি ও বিপক্ষে ২৮টি আবেদন পড়েছে।

সকালে চারটি সংসদীয় আসনের পর দুপুরে কমিশনের সঙ্গে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১, সিরাজগঞ্জ-১ ও ২, পাবনা-১ ও ২ আসনের শুনানি হয়। এছাড়া বিকালে পিরোজপুর-১, ২ ও ৩ আসনের শুনানি হয়।

সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্বিন্যাসের জন্য নির্বাচন কমিশন গত ১৪ মার্চ ৪০টি আসনের সীমানায় পরিবর্তন এনে ৩০০ আসনের খসড়া গেজেট আকারে প্রকাশ করে। এর পক্ষে বিপক্ষে দাবি ও আপত্তি গ্রহণ করে কমিশন। এতে আপত্তি জানিয়ে ৪০৭টি এবং ইসির পক্ষ সমর্থন করে ২২৪টি আবেদন জমা পড়ে। এসব আপত্তির পর শনিবার থেকে শুনানি শুরু হয়।

আগামী ২৩ এপ্রিল খুলনা, সিলেট ও ময়মনসিংহ বিভাগের, ২৪ এপ্রিল চট্টগ্রাম এবং ২৫ এপ্রিল ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন আসনের শুনানি হবে। শুনানি শেষে ৩০ এপ্রিল চূড়ান্ত গেজেট প্রকাশের কথা রয়েছে। প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ সব কমিশনার শুনানির সময় উপস্থিত ছিলেন।

বিডি২৪লাইভ/ওয়াইএ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: