আমি পালিয়ে গেছি, তুমি টেনশন কইরো না

২৩ এপ্রিল, ২০১৮ ০৯:০৭:০০

ছবিঃ সংগৃহীত

বিয়ের মতো চিরবন্ধনের সম্পর্ক ইদানীং কেমন যেন ঠুনকো সম্পর্কে রূপ নিয়েছে। পরিবারের পছন্দে দুই হাত এক হচ্ছে। কিন্তু সে সম্পর্ক টিকছে না বেশিদিন। এমন অহরহ ঘটছে বিয়েবিচ্ছেদের ঘটনা। এর পেছনে অনেক কারণ থাকলেও ‘পরকীয়া’ অন্যতম।

এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায়, স্বামীর ঘর ছেড়ে প্রেমিকের হাত ধরে রাতের আঁধারে পালিয়ে গেছেন সাবিনা নামের এক গৃহবধূ। পরে আবার স্বামীকে ফোন করে স্ত্রী বলেন, ‘আমি পালিয়ে গেছি, তুমি টেনশন কইরো না।’

ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার (১৮ এপ্রিল) রাতে মুক্তাগাছার রঘুনাথপুর গ্রামে। এ ব্যাপারে মুক্তাগাছা থানায় গৃহবধূর স্বামী শাহজালাল একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, পাঁচ মাস আগে রঘুনাথপুর গ্রামের আব্দুল কাইয়ুমের ছেলে শাহজালালের সঙ্গে সদর উপজেলার মাইজবাড়ি গ্রামের আইয়ুব আলীর মেয়ে সাবিনা বেগমের (২০) বিয়ে হয়।

শাহজালাল একটি গার্মেন্টতে চাকরি করতেন। আর স্ত্রী সাবিনা থাকতেন বাড়িতে। স্বামীর অনুপস্থিতিতে সাবিনা তার পূর্বের প্রেমিক ইউসুফের সঙ্গে মোবাইলে প্রায়ই কথা বলতেন। বিষয়টি বাড়ির লোকজন টের পেয়ে যায়। এ ব্যাপারে সাবিনাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে শাহজালাল। এমনকি পূর্ব প্রেমিকের কথা স্বীকারও করেন সাবিনা।

বুধবার রাতে বাড়ির সবার অজান্তে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে প্রেমিক ইউসুফের সঙ্গে পালিয়ে যান সাবিনা। খবর পেয়ে শাহজালাল তার শ্বশুরসহ আত্মীয়স্বজনদের বিষয়টি জানান।

১৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে প্রেমিকের মোবাইল নম্বর থেকে সাবিনা ফোন করে স্বামী শাহজালালকে বলেন, ‘আমি প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে গেছি, তুমি টেনশন কইরো না।’

স্ত্রীর মুখে এমন কথা শোনার পর স্বামীর মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে। উপায় না পেয়ে শাহজালাল মুক্তাগাছা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে মুক্তাগাছা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহাম্মদ মোল্লা বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বিডি২৪লাইভ/ওয়াইএ

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: