সম্পাদনা: সাজিদ সুমন

ডেস্ক এডিটর

রোজা উপলক্ষে মসজিদ উপহার দিলেন খ্রিস্টান ব্যবসায়ী

১৮ মে, ২০১৮ ০৯:১৭:০৪

ছবিঃ সংগৃহীত

কেরলের কায়ামকুলমের বাসিন্দা সাজি চেরিয়ান নামে ওই খ্রিস্টান ব্যবসায়ী কর্মীদের একটা মসজিদ উপহার দিলেন এক ভারতীয় ব্যবসায়ী। বর্তমানে আরব আমিরশাহীতে ব্যবসা করছেন তিনি। সেখানেই তাঁর অধীনে কাজ করা মুসলিম কর্মীদের এই উপহার দিলেন ওই ব্যবসায়ী।

ওই মসজিদের নাম দেওয়া হচ্ছে মরিয়ম, উম ইসা। চেরিয়ান লক্ষ্য করেন ট্যাক্সি চেপে কাছাকাছি মসজিদে যেতে হয় কর্মীদের। শুক্রবারে প্রার্থনার জন্য তাদের খরচ হয় ২০ সৌদি মুদ্রা। তা দেখেই মসজিদ তৈরির কথা মাথায় আসে তাঁর। তাই কর্মীরা যেখানে থাকে, তার পাশেই তৈরি করা হয়েছে মসজিদ।

২০০৩ সালে আরব আমিরশাহীতে যান ওই ব্যবসায়ী। সামান্য টাকা ছিল কাছে। আর আজ তিনি প্রায় আড়াই কোটি টাকা দিয়ে তৈরি ওই মসজিদ উপহার দিলেন কর্মীদের।

একসঙ্গে অন্তত ২৫০ জন নামাজ পড়তে পারবে সেই মসজিদে। আর মসজিদের ঘেরা বাগানে নামাজ পড়তে পারবে আরও ৭০০ জন। বাগানের উপর ছাউনি দিয়ে দেওয়া হয়ে। বছর খানেক আগে মসজিদ তৈরির কাজ শুরু হয়। অবশেষে খোলার জন্য প্রস্তুত সেটি।

চেরিবান বলেন, ‘আমি একজন খ্রিস্টান হয়েও মসজিদ তৈরি করেছি জেনে খুশি প্রশাসন। মসজিদে বিনামূল্যে বিদ্যুৎ ও জল দেওয়ার ব্যবস্থাও করা হচ্ছে।’

ইতিমধ্যেই কার্পেট আর সাউন্ড সিস্টেম চলে এসেছে। অনেকে নগদ টাকা, রঙ বা মসজিদ তৈরির উপকরণ দানও করতে চেয়েছিল তাঁকে। কিন্তু তিনি কোনও সাহায্য নেননি। নিজের টাকা দিয়েই বানিয়েছেন সেই মসজিদ।

গোঁড়া খ্রিস্টান পরিবারে বড় হয়েছেন চেরিয়ান। এর আগে একটি চার্চও তৈরি করেছেন তিনি। কিন্তু তিনি কখনই একজন মানুষকে ধর্ম, জাত দিয়ে বিচার করতে চান না। আরব আমিরশাহীতেও সেই সম্প্রীতির নজির রয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি।

বিডি২৪লাইভ/এসএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: