সম্পাদনা: এম আর মাসফি

ডেস্ক এডিটর

ইফতারে ফলের শরবত!

১৮ মে, ২০১৮ ০৯:৩৩:৫১

ছবি: প্রতিকি

শুরু হয়েছে সিয়াম সাধনার মাস পবিত্র মাহে রমজান। মুসলিম সমাজে এটি একটি উৎসবও বটে। সকলে নানা আয়োজনে সিয়াম সাধনার মাসকে বরণ করে নেয়। সুবহে সাদিক থেকে থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের আসায় সকল প্রকার পানাহার থেকে বিরত থাকার নামই সিয়াম সাধনা বা রোজা। বর্তমানে চলছে গ্রীষ্মকাল প্রকৃতি এখন খুবই উত্তপ্ত।

সারাদিন রোজা রাখার পর সকলেই প্রায় ক্লান্ত তৃষ্ণার্ত হয়ে পড়ে। আর এর জন্য ইফতারে ঠান্ডা জাতীয় পানীয় সবাই পেতে চায়। তাই ইফতারে তৃষ্ণা মেটাতে শরবত বা তাজা ফলের রসের জুড়ি নেই। আমের এই ভরা মৌসুমে এক গ্লাস ঠান্ডা আমের জুসের চেয়ে ভালো পানীয় আর কী হতে পারে!

বিবিন্ন ফলের জুস কিভাবে তৈরি করবেন তা নিচে দেখে নিন:-

কাঁচা আমের শরবত

যা লাগবে :

কাঁচা আম কিউব করে কাটা-২টি আম, পানি-৭৫০ গ্রাম, কাঁচা মরিচ-১টি, চিনি-১/২ কাপ বা স্বাদমতো, লবণ-১ চা চামচ, সবুজ ফুড কালার পছন্দ অনুযায়ী কয়েক ফোঁটা।

যেভাবে করবেন :

কাঁচা আম, মরিচ এবং পানি একত্রে মিশিয়ে ব্লেন্ড করে ছেঁকে নিন। চিনি ও লবণ দিয়ে নেড়ে মিশিয়ে দিন। ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করুন। ফুড কালার মিশিয়ে পরিবেশন করুন দারুণ স্বাদের টক-মিষ্টি-ঝাল কাঁচা আমের শরবত।

পেস্তা মালাবি

যা লাগবে :

দুধ এক লিটার, কর্নফ্লাওয়ার দুই/তিন কাপ, চিনি এক/দুই কাপ, হেভি ক্রিম এক কাপ, পেস্তা বাদাম বাটা চার টেবিল চামচ, পেস্তা ও কাঠবাদাম কুচি দুই টেবিল চামচ, গোলাপ পানি এক টেবিল চামচ, সবুজ ফুড কালার পছন্দমতো কয়েক ফোঁটা।

সিরার জন্য- পানি এক/দুই কাপ, চিনি এক কাপ, গোলাপ পানি এক টেবিল চামচ, লাল ফুড কালার পছন্দমতো কয়েক ফোঁটা।

যেভাবে করবেন :

দুধ ঘন ঘন নেড়ে জ্বাল দিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন। এখান থেকে এক কাপ দুধ নিয়ে কর্নফ্লাওয়ারগুলে বাকি দুধে মেশান। হেভি ক্রিম ও চিনি মেশান। এবার মৃদু আঁচে চুলায় বসিয়ে দ্রুত নাড়তে থাকুন। ঘন থকথকে হলে গোলাপ পানি মেশান। অর্ধেকটা উঠিয়ে রাখুন। বাকি অর্ধেকে পেস্তা বাদাম বাটা এবং সবুজ ফুড কালার মিশিয়ে নেড়ে নামান। স্বচ্ছ সার্ভিং ডিশে ছবির মতো করে সবুজ ও সাদা লেয়ার ঢেলে দিন। ঠাণ্ডা করে নিন।

এবার সিরা তৈরির পালা। চুলায় পানি বসান। টগবগ করে ফুটলে চিনি দিন। চিনি পুরো গলে গেলে ফুড কালার ও গোলাপ পানি দিয়ে নামান। কিছুটা ঠাণ্ডা হলে সার্ভিং ডিশের উপরে ছবিরমতো কিছুটা করে ঢেলে দিন। ঠাণ্ডা করে পছন্দমতো সাজিয়ে উপরে পেস্তা ও কাঠবাদাম কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

পাইনএ্যাপেল জুস

যা লাগবে :

মাঝারি আনারস কিউব করে কাটা-১/২টা, ঠাণ্ডা পানি-এক কাপ, চিনি-১/২ কাপ, লবণ-১/৪ চা চামচ, বীট লবণ-১/৪ চা চামচ, গোল মরিচের গুঁড়া-১ চিমটি, কাঁচা মরিচ-১টা, আইস-১/২ কাপ।

যেভাবে করবেন :

আনারসের টুকরা এবং কাঁচা মরিচ ব্লেন্ড করে ছেঁকে রস বের করে নিন। এই রসের সঙ্গে চিনি, লবণ, বীট লবণ, গোল মরিচের গুঁড়া ও পানি মিশিয়ে ঘুটে নিন। আইস ক্রাশ করে সাভিং গ্লাসে ভাগ করে দিয়ে উপর থেকে জুস ঢেলে দিন। ইচ্ছামতো সাজিয়ে পরিবেশন করুন ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা পাইনএ্যাপেল জুস।

তরমুজের জুস

যা লাগবে :

তরমুজ-২৫০ গ্রাম, লবণ-১ চিমটি, চিনি- ইচ্ছানুযায়ী, লেবুর রস-১ চা চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া-১ চিমটি, পুদিনা পাতা ২/৩টি, আইস কিউব ১০/১২টি।

যেভাবে করবেন :

তরমুজ টুকরো করে হামান-দিস্তায় থেঁতো করে নিন। বীচি বেছে ফেলে দিন। সব উপকরণ মিশিয়ে ঘুটে নিন। আইস কিউব দিয়ে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।


মাল্টার জুস

যা লাগবে :

মাল্টা-দুইটা, চিনি-দুই টেবিল চামচ, লবণ-১/২ চা চামচ, ঠাণ্ডা পানি-১/২ কাপ, লেবুর রস-১ টেবিল চামচ, আইস কিউব-১/২ কাপ, ফুড কালার ইচ্ছানুযায়ী।

যেভাবে করবেন :

মাল্টার রস বের করে নিন। ঠাণ্ডা পানি, চিনি, লবণ মিশিয়ে নেড়ে জুস বানান। লেবুর রস মিশিয়ে দিন। সার্ভিং গ্লাসে আইস কিউব দিয়ে জুস ঢেলে দিন। ব্যাস, মজাদার এবং হেলদি মাল্টার জুস খাওয়ার জন্য রেডি।

বিডি২৪লাইভ/এমআরএম

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: