প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত

সম্পাদনা: সাজিদ সুমন

ডেস্ক এডিটর

বিএনপি নেতার হুঁশিয়ারি

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন এখান থেকেই হবে 

১৮ মে, ২০১৮ ১১:৫৮:১৬

ছবিঃ সংগৃহীত

ভোট কেন্দ্র রক্ষায় আমরা সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিচ্ছি। প্রতিটি কেন্দ্রে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হবে। আমাদের কর্মীরা জীবন দিয়ে হলেও ব্যালট পেপার রক্ষায় বদ্ধপরিকর। গাজীপুর থেকেই মুক্তিযুদ্ধের সূচনা হয়েছিল। আবার ৪৮ বছর পর গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন গাজীপুর থেকেই সূচিত হবে।

বৃহস্পতিবার (১৭ ) মে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে ২০ দলীয় জোট মেয়রপ্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। সকালে তিনি নিজ বাসভবনে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভায় অংশ নেন।

পরে গাজীপুর আদালতে একটি মামলায় হাজিরা দিতে যান। এ সময় তার সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদীন ফারুকসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

হাসান উদ্দিন সরকার আরও বলেন, নির্বাচন কমিশন যদি খুলনা মডেলের নির্বাচন গাজীপুরে করতে চায়, তবে পরিস্থিতি সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাবে। ওই দিনই এই সরকারের ভাগ্য নির্ধারণ হবে। ২৬ জুন ভোট ডাকাতি হলে আমাদের কর্মীবাহিনী ভোট ডাকাতদের মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেবে।

হাসান উদ্দিন সরকারের নির্বাচনী প্রধান এজেন্ট শিল্পপতি মো. সোহরাব উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার সকালে হাসান উদ্দিন সরকারের দত্তপাড়ার বাসায় গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ওই সভায় খুলনা সিটি নির্বাচনের চুলচেরা বিশ্লেষণ এবং গাজীপুরে ২০ দলের কেন্দ্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গড়ে তোলার সম্ভাব্য দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২০ দলীয় জোট মেয়রপ্রার্থীর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি ফজলুল হক মিলন সভায় সভাপতিত্ব করেন।

অন্যদের মধ্যে সভায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য ও কালিয়াকৈর পৌরসভার মেয়র মজিবুর রহমান, বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য ডা. মাজহারুল আলম, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি সালাহ উদ্দিন সরকার, সহসভাপতি মীর হালিমুজ্জামান ননী, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শিল্পপতি সোহরাব উদ্দিন, টঙ্গী থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম শুক্কুর, গাজীপুর সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সুরুজ আহমেদ, জেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মেহেদী হাসান এলিস, সদর থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বসির আহমেদ বাচ্চু, সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক শওকত হোসেন সরকার, জেলা হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম সম্পাদক মুফতি নাসির উদ্দিন খান, টঙ্গী থানা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি ইসমাইল শিকদার বসু, সাংগঠনিক সম্পাদক সফিউদ্দিন খান, গাছা বিএনপির সভাপতি মোশারফ হোসেন খান, পুবাইল বিএনপির সভাপতি সোলেমান খান, সদর থানা ছাত্রদলের সভাপতি নাসির উদ্দিন নাসির প্রমুখ।

বিডি২৪লাইভ/এসএস

বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ ডট কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

পাঠকের মতামত: